Scroll to top

FAQ

সম্মানিত করদাতাগণের মনে সম্ভাব্য যে ধরণের প্রশ্ন আসতে পারে, তার কিছু নমুনা প্রশ্ন এবং উত্তর

প্রশ্নঃ কিভাবে আমি টিআইএন রেজিস্ট্রেশন করব ?

উত্তরঃ আয়কর মেলায় টিআইএন বুথে এসে আপনি টিআইএন রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে পারবেন। এজন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে। রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে সঙ্গে সঙ্গে আপনি টিআইএন সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন।

প্রশ্নঃ আমি আমার টিআইএন সার্টিফিকেট প্রিন্ট করেছিলাম কিন্তু এখন খুঁজে পাচ্ছি না, এখন আমি কিভাবে সেটা আবার পেতে পারি ?

উত্তরঃ আয়কর মেলায় টিআইএন বুথে এসে আপনি প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে প্রিন্টেড টিআইএন সার্টিফিকেট নিতে পারবেন। এজন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে।

প্রশ্নঃ আমি আমার ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি, এখন কিভাবে তা রিকভার করব ?

উত্তরঃ আয়কর মেলায় টিআইএন বুথে এসে আপনি ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। এজন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে।

প্রশ্নঃ আমি আমার আয়কর রিটার্ন কোথায় জমা দিব ?

উত্তরঃ আয়কর মেলায় অবস্থিত আপনার কর অঞ্চলের জন্য নির্ধারিত রিটার্ন গ্রহণ বুথে রিটার্ন জমা দিতে পারবেন।

প্রশ্নঃ আমি টিআইএন নিয়েছি, আমার কি রিটার্ন দাখিল করতে হবে ?

উত্তরঃ আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ৭৫ ধারায় বর্ণিত শর্তসমূহের মধ্যে হলে আপনাকে ৩০শে নভেম্বরের মধ্যে রিটার্ন দাখিল করতে হবে। আর রিটার্ন দাখিল করতে হলে টিআইএন থাকা বাধ্যতামূলক।

প্রশ্নঃ আমি রিটার্ন জমা দেওয়ার জন্য সময় বাড়ানোর আবেদন কিভাবে করব ?

উত্তরঃ আপনি সংশ্লিষ্ট উপ কর কমিশনারের কাছে নির্ধারিত ফরমে সময় বাড়ানোর আবেদন করবেন। সংশ্লিষ্ট উপ কর কমিশনার ২ মাস পর্যন্ত রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় বাড়াতে পারবেন। এর পরে সংশ্লিষ্ট পরিদর্শী রেঞ্জ কর্মকর্তার অনুমতি নিয়ে উপ কর কমিশনার আরও ২ মাস সময় বাড়াতে পারবেন। তবে মনে রাখতে হবে সময় বাড়ানোর আবেদন গৃহীত হলেও আপনাকে বিলম্ব সুদ পরিশোধ করতে হবে।  সুতরাং সময়মত রিটার্ন দিন, বিলম্ব সুদ পরিহার করুন।

প্রশ্নঃ কিভাবে আমি আমার করযোগ্য আয়ের বিপরীতে করের হিসাব করব ?

উত্তরঃ  প্রথম ২,৫০,০০০/- টাকা পর্যন্ত করমুক্ত আয় হিসাবে গণ্য হবে , তবে মহিলা, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি (person with disability) এবং গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতার ক্ষেত্রে করমুক্ত সীমা হবে নিম্নমূপ:

(১) মহিলা করদাতা এবং ৬৫ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সের করদাতা: ৩,০০,০০০/- টাকা

(২) প্রতিবন্ধী ব্যক্তি করদাতা: ৪,০০,০০০/- টাকা

(৩) গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতা: ৪,২৫,০০০/- টাকা

কোন প্রতিবন্ধী ব্যক্তির পিতামাতা বা আইনানুগ অভিভাবকের জন্য করমুক্ত সীমা ৫০,০০০/- টাকা বেশী হবে। প্রতিবন্ধী ব্যক্তির পিতা ও মাতা উভয়েই করদাতা হলে যেকোন একজন এ সুবিধা পাবেন। পরবর্তী ৪,০০,০০০/- টাকা পর্যন্ত ১০% হারে , পরবর্তী ৫,০০,০০০/- পর্যন্ত ১৫% হারে , পরবর্তী ৬,০০,০০০/- পর্যন্ত ২০% হারে , পরবর্তী ৩০,০০,০০০/- পর্যন্ত ২৫% হারে এবং অবশিষ্ট আয়ের উপর ৩০% হারে কর প্রযোজ্য হবে।

প্রশ্নঃ আমি বিনিয়োগ জনিত আয়কর রেয়াত কিভাবে হিসাব করব ?

উত্তরঃ একজন করদাতা অনুমোদিত ক্ষেত্রে বিনিয়োগ এবং দান করলে তিনি তাঁর জন্য প্রযোজ্য প্রাপ্য বিনিয়োগ এর উপর নির্ধারিত হারে সরাসরি আয়কর রেয়াত পাবেন।

১. মোট করযোগ্য আয় X ২৫% (৮২ সি ধারায় আয়, সঞ্চয়পত্রের সুদ আয়, কর অব্যাহতি প্রাপ্ত আয় ও হ্রাসকৃত হারে করযোগ্য আয় ব্যতীত মোট করযোগ্য আয়)এ তিনটির মধ্যে যেটি কম
২. সর্বোচ্চ এক কোটি পঞ্চাশ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ
৩. প্রকৃত বিনিয়োগ

কর রেয়াতের হার

মোট আয়রেয়াতের হার
১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হলেসরাসরি প্রাপ্য অংকের ১৫%
১৫ লক্ষ টাকার অধিক হলেসরাসরি প্রাপ্য অংকের ১০%
প্রশ্নঃ রিটার্ন ফরম পূরণে কিভাবে সাহায্য পাওয়া যাবে ?

উত্তরঃ আয়কর মেলায় অবস্থিত হেল্প ডেস্কের পরামর্শ নিয়ে আপনি অনায়াসে রিটার্ন ফরম পূরণ করতে পারবেন।

প্রশ্নঃ আমি মেলায় রিটার্ন জমা দিয়েছি, মেলায় কি ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটও পাব?

উত্তরঃ না, মেলা থেকে কোনো ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট দেয়া হয় না। কারণ মেলায় কোনো আয়কর নথি থাকে না। তবে সংশ্লিষ্ট সার্কেল থেকে সার্টিফিকেট পাওয়া যাবে।

প্রশ্নঃ রিটার্নের সাথে সম্পদ বিবরণী এবং জীবনযাত্রার ছক দাখিল করা কি বাধ্যতামূলক ?

উত্তরঃ না। সবার ক্ষেত্রে এ দুটি বিবরণী পূরণ করে রিটার্নের সাথে জমা দেয়া বাধ্যতামূলক নয়। যদি ব্যক্তি করদাতার মোট সম্পদ ২৫,০০,০০০/= টাকা অতিক্রম না করে এবং সিটি কর্পোরেশন এলাকায় নিজ নামে কোনো বাড়ি/এপার্টমেন্ট এবং গাড়ি না থাকে তাহলে সম্পদ বিবরণী (আইটি-১০বি) পূরণ করা বাধ্যতামূলক নয়।

একইভাবে বেতন থেকে বা ব্যবসা/পেশা থেকে করযোগ্য আয় যদি ৩,০০,০০০/= টাকা অতিক্রম না করে তাহলে জীবনযাত্রার ছক (আইটি-১০বিবি) পূরণ করাও বাধ্যতামূলক নয়।

তবে এ ফরম দুটি পূরণ করে রিটার্নের সাথে জমা দিতে চাইলে কোন বাধা নেই। আর পূরণ করতে না চাইলে উল্লেখ করতে হবে কেন পূরণ করা হল না।

প্রশ্নঃ আমি পরিপত্র/চালান/রিটার্ণ ফরম/TIN Application Form কোথায় পাব ?

উত্তরঃ উপরের FORMS মেনু থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। মেলার হেল্প ডেস্ক থেকেও রিটার্ন ফরম সরবরাহ করা হয়।

প্রশ্নঃ আমি আয়কর মেলায় কর পরিশোধ করতে পারবো কিনা ?

উত্তরঃ হ্যাঁ, আপনি আয়কর মেলায় ব্যাংকের বুথে অতি সহজেই কর পরিশোধ করতে পারবেন। তাছাড়া মেলায় অনলাইনে কর পরিশোধেরও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

প্রশ্নঃ আমি সঞ্চয়পত্র ভাঙিয়ে যে মুনাফা/সুদ পেয়েছি তা থেকে তো উৎসে আয়কর কেটে রেখেছে। সুতরাং সঞ্চয়পত্রের মুনাফা/সুদ কে রিটার্নে আয় হিসেবে দেখানোর প্রয়োজন আছে কিনা? যদি দেখানো হয় তাহলে Slab Rate এ কর হিসাব করলে বাড়তি কর দিতে হবে কিনা?

উত্তরঃ রিটার্নে সব আয়কেই দেখাতে হবে। কারণ না দেখালে তা কালো টাকায় পরিণত হবে। তবে ভয় নেই , সঞ্চয়পত্রের সুদের উপর নতুন করে আর কোনো কর দিতে হবে না। এক্ষেত্রে উৎসে কর ই চূড়ান্ত। কর হিসাব করার সময় সঞ্চয়পত্রের সুদকে Separate block ধরে Slab Rate এর জন্য প্রযোজ্য আয়কে আলাদা করা হয়।

প্রশ্নঃ আমিতো আগেই ল্যাপটপ কিনে ফেলেছি। পরে বাজেটে দেখলাম রেয়াত যোগ্য বিনিয়োগ খাত থেকে ল্যাপটপ তুলে দেয়া হয়েছে। তাহলে কি আমি পূর্বের ক্রয়কৃত ল্যাপটপ এর উপর বিনিয়োগ রেয়াত পাবো?

উত্তরঃ না। যেহেতু বাজেটে এটি তুলে দেয়া হয়েছে তাই ২০১৯-২০ কর বছর থেকে ল্যাপটপ/ডেস্কটপ ক্রয়ের উপর কোনো বিনিয়োগ রেয়াত প্রযোজ্য নয়।

প্রশ্নঃ সদ্য আমার পেশা/চাকুরী পরিবর্তন হয়েছে, এ কারণে আমার রিটার্ন দাখিলের অধিক্ষেত্রও পরিবর্তিত হয়েছে। তাহলে আমি কি নতুন সার্কেলে এবারের রিটার্ন দেব না কি আগের সার্কেলেই দিয়ে যাব?

উত্তর: আপনি আপনার অধিক্ষেত্র অনুযায়ী নতুন সার্কেলে রিটার্ন জমা দিবেন। তবে পুর্ববর্তী সার্কেলকে বিষয়টি অবহিত করার পাশাপাশি e-TIN Registration সিস্টেমে আপনার ইউজার আইডির মাধ্যমে প্রবেশ করে File Transfer এর জন্য আবেদন করতে হবে। প্রয়োজনীয় ভেরিফিকেশনের পর আপনার টিআইএন-টি নতুন অধিক্ষেত্রে স্থানান্তর করা হবে।

প্রশ্নঃ আমার ট্যাক্স ফাইল সিটি কর্পোরেশনের (ঢাকা) আওতায় কিন্তু আমার বর্তমান কর্মস্থল একটি জেলায় যা সিটি কর্পোরেশনের বাইরে। আমি মিনিমাম ট্যাক্স এর আওতায় পড়ি। আমাকে কি কর্মস্থলের কারণে ৩,০০০/= টাকা, নাকি ঢাকায় ফাইল থাকা এবং ঢাকায় রিটার্ন দাখিল করার কারণে ৫,০০০/= টাকা মিনিমাম ট্যাক্স দিতে হবে?

উত্তরঃ আয়কর নথি যেখানেই থাকুক সেটি নুন্যতম কর হিসাবের ক্ষেত্রে বিবেচ্য নয়। বরং বাংলাদেশের কোন প্রান্ত থেকে আয় উদ্ভুত হচ্ছে সেটিই বিবেচ্য। আপনার কর্মস্থল যেহেতু সিটি কর্পোরেশনের বাইরে তাই আপনার ক্ষেত্রে মিনিমাম ট্যাক্স ৩,০০০/= টাকাই প্রযোজ্য।

সরকারী কর্মচারীদের জনগণের সাথে মিশে যেতে হবে। তারা জনগণের খাদেম, সেবক, ভাই।
তাদের এ মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

জাতির পিতা।

``আমরা স্বাবলম্বী হব, সকলে কর দেব``
শেখ হাসিনা

- শেখ হাসিনা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।